জুম ক্লাউড মিটিং এর ব্যবহার

জুম মিটিং বর্তমান পৃথিবীতে বহুল প্রচলিত একটি আ্যাপ।এর মাধ্যমে পৃথিবীর প্রায় সকল শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইন ক্লাস নিচ্ছেন। আবার অনেক অফিস-আদালতের মিটিং, আট্টা ইত্যাদিতে এর ব্যবহার অপরিসীম। তাই এই কিভাবে ব্যাবহার করতে হয় সে সম্পর্কে জানা প্রয়োজন।
জুম মিটিং আ্যপ এ অনেক ক্লাস বা গুরুত্বপূর্ণ  বিষয়ে মিটিং সম্পাদিত হলে যদি অনিবার্যিত কারণে কেউ উপস্থিত থাকতে না পারে সে ক্ষেত্রে মিটিং টি রেকর্ড করা অত্যন্ত জরুরি কেননা যদি তা না করা হয় তবে পরবর্তীতে অনেকেই সমস্যায় পড়তে পারে। আর এক্ষেত্রে সবাইকে জুম মিটিং এ রেকর্ডের পদ্ধতি জানা প্রয়োজন, যাতে অনুপস্থিত ব্যক্তি পরবর্তীতে তা দেখতে পারে। নিম্নে জুম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হলো


জুম ক্লাউড মিটিং এর ব্যবহার

সাইন ইন করার পদ্ধতি :

একজন ব্যক্তিকে অবশ্যই জুমে সাইন ইন করে একাউন্ট খুলতে হবে। এজন্য তাকে জুম আ্যাপে ঢুকেই সাইন ইনে চাপ দিতে হবে । এরপর তিনি সাইন ইন উইদ গুগল এ চাপ দিবেন। এতে তার সাইন ইন করতে সুবিধা হবে। তারপর তার ইমেইল অনুযায়ী অটোমেটিক সাইন ইন সম্পন্ন হবে। তারপর কানেকটিং হয়ে জুমে একাউন্ট খুলে যাবে। আর যদি না হয় তবে লন্স মিটিং নামে অপশন আসবে, সেখানে ট্যাপ করলেই সাইন ইন হয়ে যাবে ।

 
মিটিং তৈরি করার পদ্ধতি:

সাইন ইন এর পর নিউ মিটিং এর অপশন আসবে ।সেখানে চাপ দিয়ে স্টার্ট এ মিটিং এ চাপ দিলেই নিজস্ব মিটিং স্টার্ট হবে। পরে সেই মিটিং এর আইডি আর পাসকোর্ড সকলকে দিলেই বা মিটিং টির লিঙ্ক কপি করে সকলে দিলেই সকলে সে মিটিং এ জয়েন হতে পারবে
আবার ব্যক্তি চাইলে এক লিঙ্কেই বারবার মিটিং করতে পারবেন ।এর জন্য তাকে পরবর্তী সময়ে মিটিংস অপশন এ যেয়ে শুধু স্টার্ট মিটিং এ টিপ দিলেই পূর্ববর্তী লিঙ্কে প্রবেশ করতে পারবেন। আবার তিনি চাইলে সেটিংস এ গিয়ে নিজের সুবিধামত পাসকোর্ড ব্যবহার করতে পারেন।

এডমিট সম্পর্কিত তথ্য:

কেউ যদি চান যে তিনি বারবার এডমিট না করে সকলকে অটো এডমিট করবেন তবে তাকে মিটিংস অপশন এ গিয়ে সেখানে ইডিট এর অপশনে গিয়ে এডমিট এর অপশন বন্ধ করে দিতে হবে। তাহলে আর তাকে কাউকে এডমিট করতে হবে না অটো এডমিট হয়ে যাবে

কথা বলার নিয়ম:

জুমে মিটিং এ প্রবেশের পর কল অভার ইন্টারনেট এ টিপ দিয়ে কথা বলতে হবে ।আর আপনার সুবিধামত মিউট ও আনমিউট করতে পারবেন

রেকর্ড করার পদ্ধতি:

জুমে রেকর্ড করার জন্য অবশ্যই কম্পিউটার বা ল্যাপটপ লাগবে। সেখানে রেকর্ড এর অপশনে ক্লিক করে যে কেউ রেকর্ড করতে পারবে। ।এরপর নিজের সুবিধামত রেকর্ড পস বা বন্ধ করা যাবে। তাছাড়া মোবাইল দ্বারা রেকর্ড করা সম্ভব না সেক্ষেত্রে স্ক্রীন রেকর্ডার দ্বারা রেকর্ড করা ছাড়া কন উপায় নেই।

জুম ক্লাউড মিটিং এর ব্যবহার


মিটিং শেষ করার উপায়ঃ

জুমে ৪০ মিনিট পর অটোমেটক মিটিং কেটে যায়। সেক্ষেত্রে ১ম কয়েকটি মিটিং এ মিটিং আপনার সুবিধামত সময় ধরে করতে পারবেন। বাট ৫ টি মিটিংয়ের পর আবার ৪০ মিনিট পর মিটিং কেটে যাবে। সেক্ষেত্রে লাইলেন্স করতে হবে। আর মিটিং শেষে ইন্ড মিটিং এ ক্লিক করে শেষ করতে হবে ।
জুম ব্যবহার বর্তমান পৃথিবীর সবাইকে উপকৃত করছে, তাই এর সঠিক ব্যবহার জানা অত্যাবশ্যক
ব্লগটি লিখেছেন- Tahsin Kabir.

*

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post

Health

Blogger Templates